এইমাত্র পাওয়া

ঝিনাইদহের পল্লিতে ১০ বছর পর অবসরপ্রাপ্ত শক্ষিকরে বাড়িতে ৩১টি নাইটকুইন

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহ থেকেঃ ঝিনাইদহ পৌর এলাকার ছোটকামার কুন্ডু গ্রামে অবসরপাপ্ত এক স্কুল শিক্ষকের বাড়িতে ৩১টি নাইটকুইন ফুটেছে।

ফুলের সুগন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে মহল্লাব্যাপী। পাড়া প্রতিবেশিরা ফুল দেখতে অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক আলাউদ্দীন আহম্মেদ মধুর বাড়িতে ভীড় করছেন। তিনি জানান, ১০ বছর আগে তার মেয়ে রোখসানা পারভিন ফুল গাছটি লাগান। এর আগেও গাছটি একাধিকবার ফুল দিয়েছে। তবে রোববার রাতে এক সাথে ৩১টি ফুল ফোটে। এতো বেশি সংখ্যক ফুল আসার কারণে ছোটকামার কুন্ডু গ্রাম সুগন্ধে মাতোয়ারা হয়ে পড়ে। শনিবার রাতেও ৭টি ফুল ফুটেছিল। শিক্ষক আলাউদ্দীন আহম্মেদ মধু ১৯৬৬ সালে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে চাকরী নেন। তার প্রথম পোষ্টিং ছিল সদর উপজেলার বংকিরা গ্রামে। ১৯৯৪ সালে তিনি লাউদিয়া স্কুল থেকে অবসরে যান। মেয়ে বিয়ে হয়ে যাওয়ায় ৭৪ বছর বয়সী এই শিক্ষক এখন নিজেই নাইটকুইন ফুল গাছটির পরিচর্চা করেন।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত