এইমাত্র পাওয়া

শৈলকুপায় এবার ঈদগাহের উন্নয়ন মিটিং-এ উপস্থিত না হওয়ায় হামলা: আহত-৪

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ ঈদগাহের উন্নয়ন মিটিং-এ উপস্থিত না হওয়ায় ঝিনাইদহের লকুপায় হামলায় মহিলাসহ ৪জন আহত হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার হাকিমপুর ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামে। আহতরা বর্তমানে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। জানা যায়, চরপাড়া ঈদগাহের উন্নয়নে বুধবার সকাল ৮টায় মাইকে ঘোষনা দিয়ে বিশেষ মিটিং আহবান করে গ্রাম্য মাতব্বর আমিন ও তৈয়ব। কিন্তু মাইকিং এর ঘোষনা শুনতে পেয়ে মনিরুজ্জামান ওরফে পরম আলী, আরব আলী ও তার ভাই তোফাজ্জেলসহ বেশ কয়েকজন সে মিটিং উপস্থিত হতে ব্যর্থ হয়। মিটিং পরবর্তী সময়ে মনিরুজ্জামান ওরফে পরম আলী চরপাড়া থেকে খুলুমবাড়ী বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এসময় চরপাড়া ঈদগাহ ময়দানের কাছাকাছি পৌছলে মিটিং শেষে ফিরে আসা মাতব্বর আমিন ও তৈয়বের নেতৃত্বে ১৫/২০ জন মিলে চরপাড়া গ্রামের মৃত হানেফ আলীর ছেলে মনিরুজ্জামান পরম আলীর উপর চড়াও হয়। এসময় তাকে চড়-থাপ্পর, কিল-ঘুষি ও লাথি মারতে থাকে। পরম আলীর চিৎকার চেচামেচি শুনে চরপাড়া গ্রামের মৃত জলিল জর্দারের ছেলে আরব আলী ও তার ভাই তোফাজ্জেল ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। এরই জের ধরে হামলাকারীরা তৎক্ষনাত দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে মনিরুজ্জামান, তোফাজ্জেল ও তার ভাই আরব আলীর বাড়ীঘর ভাংচুর করে। বাধা দিতে গেলে আরব আলী ও তার স্ত্রী হাসিনা বেগম এবং ভাই তোফাজ্জেলকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাত্ব জখম করে। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে। শৈলকুপা থানার ওসি কাজী আয়ুবুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত