এইমাত্র পাওয়া

সুবর্ণচরে পল্লী বিদ্যুতের ভেল্কীবাজি দুর্ভোগ চরমে, জনমনে অশান্তি

ইউনুছ শিকদার (নোয়াখালী) প্রতিনিধি : বিদ্যুতের সীমাহীন লোডশেডিংয়ে দিশেহারা সুবর্নরচরে শান্তিপ্রয় মানুষ। সেই সকালবেলা বিদ্যুৎ যায়, রাত ৯’টার পরে আসে। এসেই একটু পর আবার চলে যাচ্ছে।

এবার উন্নয়ন মেলায় সুবর্ণচরে পল্লী বিদ্যুতকে প্রথম পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। এখন তারা তার প্রতিদান স্বরুপ জনগণকে সীমাহীন দুর্ভোগ উপহার দিচ্ছে।

দিনে বিদ্যুত না থাকাতে বিভিন্ন অফিসিয়াল কাজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ডাটা এন্ট্রির কাজ রাতে করার জন্য সংশ্লিষ্টরা রাত জেগে আছে কম্পিউটারের সামনে, কিন্তু বিদ্যুতের এ ভাওতাবাজির কারনে কোনো প্রকার অফিসিয়াল কাজ করা যাচ্ছে না।

অন্যদিকে সামনে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বার্ষিক ও জেএসসি পরীক্ষা। বিদ্যুতের এ চরম ভেলকিবাজির করনে শিক্ষার্থীদের পড়া-লেখায় ব্যঘাত ঘটছে।

খবর নিয়ে জানা যায় সুবর্ণচরের চরজুবলীতে সাব-স্টেশনের কাজ চলাতে দিনে বিদ্যুত বন্ধ ছিল।

এখন প্রশ্ন হলো দিনে কোনোদিন রাস্তার পাশের গাছ কাটা আবার কোনোদিন লাইনে কাজ চলছে, অন্যদিন সাব স্টেশনের কাজ ইত্যাদি অযুহাত, কিন্তু রাতে? রাতে তারা কি করে।

এ যেন দেখার কেউ নাই। জনজীবন আজ বিপর্যস্ত। এই এলাকার মান্যগণ্য ব্যাক্তিদের কাছে অনুরোধ রইলো- বিষয়টি নিয়ে একটু ভাবুন। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিন।

সুবর্ণচর (নোয়াখালী) প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত