এইমাত্র পাওয়া

ফিটনেস বিহিন গাড়ি চলছে গ্রামাঞ্চলের সড়কে

(কলারোয়া) সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

লক্কড়ঝক্কড় ভাঙ্গাড়ি গাড়ি সব আমাগির রাস্তায়। যাগা পুন্ত যাতি যাতি মাজা কোমরে খ্যাল্লাগি সব্ব-শরীল ব্যাথা হুয়ি যাবে। একটু বসে শান্তি নেই ।আমাগির কপালে ভাল গাড়ি যোটপে না?? (অর্থাৎ,ফিটনেস বিহিন গাড়ি আমাদের সড়কে চলছে। গন্তব্যে যাতায়াতে সর্ব শরীরে ব্যথা হয়ে যাবে।সস্তিতে বাসে চড়ে বসতেও পারি না।আমাদের কপালে ভাল ফিটনেস গাড়ি নেই?)

-এমনই আক্ষেপে নিজ গ্রামাঞ্চলের ভাষায় মোছাঃ রহিমা বেগম নামের এক ভ্রাম্যমাণ যাত্রী ব্যক্ত করেন।

ঢাকাসহ সারা দেশে সড়ক নিরাপত্তা ও সড়কে ফিটনেস গাড়িসহ অন্যান্য দাবি নিয়ে আন্দোলন যখন তুঙ্গে,তখন ফিটনেস বিহিন গাড়ি চলছে গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন সড়কে ।

জানা যায়,রাস্তা মেরামতে জন্য দীর্ঘদিন বিরত থেকে সম্প্রতি কয়েক দিন ধরে সাতক্ষীরার কলারোয়ার খোরদো বাজার ব্রিজ সংলগ্ন এলাকা থেকে যশোর মণিরামপুরের রাজগঞ্জ রুটের ৩৫-৪০ কিলোমিটার সড়কে শুরু হয়েছে যানবাহন বাস চলাচল।

দুর দুরান্তে পৌঁছাতে সকল মানুষের চলাচলে বেশ সহজ হয়েছে বটে ওই যানবাহন বাস চলাচল শুরু হয়ে।

কিন্তূ ফিটনেস বিহিন/লক্কড়ঝক্কড় ঠেলে স্টার্ট দেওয়া গাড়ি গুলো গ্রামাঞ্চলের সড়কে দেওয়া হয়েছে বলে জানান ভ্রাম্যমাণ পথযাত্রীরা।

যদিও কিছু বড় গাড়ি সদ্য সড়কে চলছে কিন্তু সেটাও রং বা কালার করে গ্রামাঞ্চলের সড়কে ঢুকে পড়েছে বলে দাবি যাত্রীদের । এবং ছোট ছোট বাচ্চাদের নিয়ে যাতায়াত খুবই কষ্টকর বলে জানান অনেকেই ।

এবিষয়ে ওই সড়কে চলা কয়েক জন ড্রাইভার সুপারভাইজারের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন,গাড়িগুলো চলাচলে কোন সমস্যা নেই,পুর্বে ওই সড়কে যে বাস চলত সেগুলোর চেয়ে অনেক ভাল মানসম্মত আছে এবং আকারেও বড়। এবং খুব দ্রুতই কম সময়ে গন্তব্যে পৌঁছতে বিশ মিনিট পর পর স্টান্ডে গাড়ি এসেই যাত্রী নিয়ে রওনা হবে।
ঠেলে স্টার্টের বিষয়ে কথা উঠলে, ধারনা মতে যে কটি পুরাতন ফিটনেস বিহিন গাড়ি সড়কে আছে অতিদ্রুত সড়ক থেকে তুলে নিতে পারেন কতৃপক্ষ বলে জানান কয়েক জন ড্রাইভার।

এছাড়া উপজেলার খোরদো – যশোর সড়কের ড্রাইভাররা আর তেমন কিছু মন্তব্য করেননি।

এদিকে যাত্রীরা,গ্রামাঞ্চলসহ সকল সড়কে চলাচল এবং বসার উপযোগী রুচি সম্মত ফিটনেস গাড়ি দেওয়ার জন্য দ্রুতপদক্ষেপ নিবেন বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আশা করেন ।

কলারোয়া (সাতক্ষিরা ) প্রতিনিধি,
দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত