এইমাত্র পাওয়া

ঝিনাইদহের ঝিনুক টাওয়ারের ফ্ল্যাটে ভার্সিটির ছাত্রীর আত্মহত্যা!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
পারিবারিক ভাবে মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেওয়ায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের নিজেদের ফ্ল্যাটে আত্মহত্যা করেছে মুনতা হেনা নামে এক ভার্সিটির ছাত্রী। তিনি ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ বর্ষে পড়তেন। মুনতা হেনার পিতা ইবির আল হাদিস বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আশরাফুল আলম।

এদিকে মুনতা হেনার আত্মহত্যার খবর জানতে পেরে তার প্রেমিক রোকনুজ্জামানও ট্রেনের নিচে ঝাপ দিয়ে জীবন সাঙ্গ করেন। কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে ইবির মেধাবী দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে ক্যাম্পাসে শোকের ছায়া নেমে আসে। পুলিশ জানায়, পারিবারিকভাবে প্রেমের সম্পর্ক মেনে না নেয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের পঞ্চমতলায় নিজ কক্ষে ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন হেনা।

অন্যদিকে প্রেমিকার মৃত্যুর সংবাদ শুনে রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন প্রেমিক রোকনুজ্জামান। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলায়। পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ শুক্রবার খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন। রোকনুজ্জামানও ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত