এইমাত্র পাওয়া

চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জে গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে খুন হওয়া আদাদুল হত্যা মামলায় রায় দিয়েছে আদালত। রায়ে ৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

এছাড়াও মামলায় অভিযুক্ত অপর ৮ জনকে খালাস দিয়েছে আদালত। বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত দায়রা জজ আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মো. শওকত আলী আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামীরা হচ্ছে, জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামের তোহর আলীর ছেলে দবির আলী (৩৯), একই গ্রামের এরফান আলী টিপুর ছেলে হামেদ আলী (৪১) ও তার ভাই রুমেদ আলী (৩৮), মৃত আবু বাক্কারের ছেলে আকালু (৪৪) এবং মৃতভোগা তেলীর ছেলে এরফান আলী টিপু (৬১)। তবে, হামেদ আলী ও রুমেদ আলী পলাতক রয়েছে।চাঁপাইনবাবগঞ্জের সহকারি সরকারি কৌশলী আঞ্জুমান আরা মামলার নথি থেকে জানান, গোমস্তাপুর উপজেলার ভাগলপুর গ্রামে জমিজমা সংক্রান্তের জেরে ২০০৯ সালের ১৬ অক্টোবর রাতে দুখু মন্ডলের ছেলে আহাদুল রহনপুর খোয়ার মোড় থেকে বাড়ী ফেরার পথে ভাগলপুর গ্রামের পশ্চিমদিকে একটি বরই বাগানে পাশের আসামীদের দ্বারা হামলার শিকার হয়। এসময় হাসুয়াসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে আসামীরা। পরে, স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আহাদুলকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় পরদিন গোমস্তাপুর থানায় মৃতের শশুর শামসুল হক বাদী হয়ে ১৩ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ বাবর আলী ২০০৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর আদালতে ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ সাক্ষ্য প্রমানাদি শেষে বুধবার দুপুরে বিজ্ঞ বিচারক ৫ জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদাণ করেন। রাষ্ট্র পক্ষে অতিরিক্ত পিপি আঞ্জুমান আরা এবং আসামী পক্ষে ছিলেন এ্যাডভোকেট মো. নুরুল ইসলাম সেন্টু।চাঁপাইনবাবগঞ্জে হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত