এইমাত্র পাওয়া

ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত কোটচাঁদপুরের জোবায়ের বাচাঁতে চাই

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:
তিন বছর চিকিৎসা করালে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত শিশু জোবায়ের বাঁচতে পারবে। কিন্তু রোগ ধরা পড়ার ৬ মাসেই ব্যায় হয়ে গেছে চার লাখ টাকা। এতে দরিদ্র চাকরীজীবী জোবায়েরের পিতার জমি, ভিটে বাড়ি ও মায়ের গহনা বিক্রি করতে হয়েছে।

জোবায়ের ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার গুড়পাড়া গ্রামের মনিরুল ইসলাম ও মা শিরিন শিলার একমাত্র ছেলে। পিতা মনিরুল বেসরকারি একটি ব্যাংকের পিয়ন। মা গৃহিনী। ৬ মাস আগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শিশুটির ক্যান্সার ধরা পড়ে। সেই থেকে জোবায়ের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পেডিয়াট্রিক হেমটোলজি এন্ড অনকোলজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর ডাঃ আমিরুল ইসলাম খসরুর তত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে। শিশুটির পিতা মনিরুল ইসলাম জানান, গত ৬ মাসে ছেলের চিকিৎসায় ব্যায় হয়েছে ৪ লাখ টাকা। টাকার জন্য জমি বিক্রি, ঋণ গ্রহণ ও স্ত্রীর গহনা বিক্রি করতে হয়েছে। চিকিৎসকরা বলেছেন জোবায়েরের সুস্থ হতে ৩ বছর লাগতে পারে। কিন্তু এতো টাকা তার নেই। সন্তাকে বাঁচাতে বাবা ও মা ঢাকায় থাকছেন।

টাকা সংগ্রহ করতে জুবায়েরের দাদা নজরুল ইসলাম এলাকার জন প্রতিনিধি, দানশীল, বিত্তবান ও স্বজনদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। কিন্তু তেমন সুফল মিলছে না। নিরুপায় বাবা-মা তাদের একমাত্র শিশু সন্তানকে বাচাঁতে দেশের প্রধান মন্ত্রীসহ সমাজের বিত্তবান ও দানশীলদের কাছে আর্থিক সহায়তার দাবী করেছেন। পরিবারটির সাথে যোগাযোগ ও বিকাশ নম্বর ০১৭১১-৯০১৯৯১। বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক, সঞ্চয় হিসাব নম্বর ৪০৪০, কোটচাঁদপুর শাখা, ঝিনাইদহ।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত