এইমাত্র পাওয়া

কালীগঞ্জে বাড়ীতে যাওয়া রাস্তা নিয়ে সংঘর্ষ নিহত১

কালীগঞ্জে

এস,এম সহিদুল ইসলাম লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে চাচার লাঠির আঘাতে কহিনুর হোসেন (৩২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন নিহতের বাবা-মা ও ভগ্নিপতি। শনিবার (৪ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টায় উপজেলার চন্দ্রপুর ইউনিয়নের লতাবর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।মৃত কহিনুর ওই গ্রামের তসলিম হোসেনের ছেলে। তিনি ঢাকায় পোশাক কারখানায় কাজ করতেন বলে জানা যায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, কহিনুরদের বাড়িতে যাওয়ার রাস্তা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তার চাচা জোবেদ আলী ও আনছার আলীর মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার বৈঠক হলেও নিষ্পত্তি হয়নি। কহিনুর ঢাকা থেকে বাড়ি ফিরে শনিবার ওই রাস্তার জন্য চাচাদের নিয়ে আলোচনায় বসলে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে জোবেদ ও আনছার আলীর লাঠির আঘাতে ঘটনাস্থলেই কহিনুরের মৃত্যু হয়। এ সময় মারামারি ঠেকাতে গেলে তার বাবা তসলিম হোসেন, মা কুলসুম বেগম ও ভগ্নিপতি জিল্লুর হোসেন গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে কহিনুরের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লালমনিরহাট সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ ঘটনায় ঘাতক জাবেদ আলীকে সহ ৪ জনকে আটক করে পুলিশ।আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। কালীগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মকবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

লালমনিরহাট প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত