এইমাত্র পাওয়া

এ্যাডভোকেট ওমর ফারুক সুবর্ণচরের গৌরব !

এ্যাডভোকেট ওমর ফারুক

ইউনুছ শিকদার : নোয়াখালী জেলার একমাত্র উপজেলা “সুবর্ণচর” যাকে সাংগঠনিকভাবে তুলনা করা হয় ২য় গোপালগঞ্জ হিসেবে। আওয়ামীলীগ এর রাজনীতির এই অবস্থানের জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামীলীগের সফল সভাপতি,বিনয়ী, সদালাপী,আপাদমস্তক একজন ভদ্রলোক, লব্ধপ্রতিষ্টিত আইনজীবী, জীবন্ত কিংবদন্তি নেতা,জননেতা জনাব, এডভোকেট ওমর ফারুক সাহেব।

চট্রগ্রাম কমার্স কলেজ ছাত্রলীগ এর সাবেক বর্ষীয়ান ছাত্রনেতা, আওয়ামীলীগ বিরোধীদলে থাকাকালীন সময়ে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে রাজপথের সামনের কাতারে থেকে অকুতোভয় ভুমিকা পালন করেছেন। সুবর্ণচর উপজেলার রাজনৈতিক সহবস্থান সৃষ্টিকারি বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ বর্ণাঢ্য রাজনীতির ধারক ও বাহক এই নেতার ব্যক্তিতের সাথে অন্য কারো তুলনা চলে না। নোয়াখালীবাসির হৃদয়ের চির সম্রাট, নোয়াখালীর মাটি ও মানুষের নেতা, জননেতা জনাব, একরামুল করিম চৌধুরী এম,পি সাহেবের বিশ্বস্ত সহচর হিসেবে আধুনিক সুবর্ণচর গঠনে রেখেছেন অগ্রণী ভুমিকা। যার ফলশ্রুতিতে সুবর্ণচর উপজেলাবাসীর প্রশংসা বন্যায় ভাসছেন তিনি। আওয়ামীলীগ এর কঠিন দু:সময়ে দলের প্রতি আনুগত্যের পরীক্ষায় বারবার উত্তীর্ন হয়েছিলেন সুবর্নচরের এই জনপ্রিয় নেতা। ব্যাক্তি জীবনে রাজপরিবারে সোনার চামুচ মুখে নিয়ে জন্ম গ্রহন করলেও নিরহংকার এই রাজনীতিবিদ নিজের টাকা পয়সা খরচ করে গরীব অসহায় মেহনতি মানুষের উপকার করেন এবং বিপদ আপদে এগিয়ে আসেন।

ইতিহাস সাক্ষী হয়ে আছে সুবর্ণচরের বিভিন্ন স্কুল,মাদ্রাসা,মসজিদ এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠান শতকোটি টাকার বেশী মুল্যের সম্পদ দান করেছেন যার পরিবার। সুবর্নচর উপজেলা আওয়ামীলীগের তৃনমুলের অত্যান্ত প্রিয় মুখ জননেতা জনাব,এডভোকেট ওমর ফারুক সাহেব নিজ কর্মগুনে আরো এগিয়ে যাবেন বলে আমাদের বিশ্বাস।

সুবর্ণচর (নোয়াখালী) প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত