এইমাত্র পাওয়া

ঝিনাইদহে পাগলীটাও মা হয়েছে বাবা হয়নি কেউ

ঝিনাইদহ সংবাদাতাঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না এলাকায় অজ্ঞাত পরিচয়ের এক মানসিক প্রতিবন্ধি নারী কন্যা সন্তান জন্ম দিয়েছে। শুক্রবার সকালে গান্না বাজারের মুক্তিযোদ্ধা মসিউর রহমান ডিগ্রী কলেজের পেছনের মাঠে ওই অজ্ঞাত নারী সন্তান জন্মদানের পর অচেতন হয়ে পড়ে। এ সময় প্রতিবেশি জরিনা বেগম বিষয়টি দেখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান নাছির মালিথাকে খবর দেন। জরিনা বেগম জানান, সন্তান প্রসবের পর জ্ঞান ফিরলে অজ্ঞাত ওই নারী ছুটে ছুটে দৌড় মারছিলো। এ সময় সে সন্তানের দিকে আঙ্গুল তুলে বলতে থাকে “এই তুরা নিয়ে যায়, তুরা নিয়ে যা”। গান্না ইউনিয়নের মেম্বর জয়নাল আবেদীন জানান, সকাল ছয়টায় দিকে কলেজের পশ্চিম মাঠে অজ্ঞাত পরিচয়হীন এই মহিলা সন্তান প্রসব করে অচেতন হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে মা ও নবজাতককে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তির জন্য পাঠানো হয়।
গান্না চেয়ারম্যান ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মোঃ নাসির উদ্দিন খবরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, মানসিক প্রতিবন্ধি নারীটি এলাকায় ঘোরাফেরা করতো। তার নাম ঠিকানা ও পরিচয় কেও জানে না। তবে ভাষা শুনে বোঝা যায় মহিলাটির বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। স্থানীয়রা জানান, স্কুল, কলেজ ও দোকানের বারান্দায় রাত যাপনের কারণে কারো লালসার শিকার হয় মানসিক প্রতিবন্ধি নারী। এরপর সে গর্ভবতি হয়ে পড়ে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ অপুর্ব কুমার জানান, বর্তমানে মা এবং নবজাতক শিশুটি সুস্থ আছে। হাসপাতাল থেকেই তাদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

আরো পড়ুন: শিবগঞ্জে পাগলীটাও মা হয়েছে বাবা হয়নি কেউ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি, দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত