এইমাত্র পাওয়া

ধর্ষণের পর হত্যা, গোপনাঙ্গ থেকে বিয়ারের বোতল উদ্ধার

বস্তি এলাকার ঘর থেকে উদ্ধার হয়েছে এক বছর ৩৫ -এর মহিলার বিবস্ত্র পচা গলা দেহ। ময়না তদন্ত করতে গিয়ে ডাক্তাররা তাঁর গোপনাঙ্গে পেলেন বিয়ারের ক্যান, ঠান্ডা পানিয়ের বোতল! ভয়াবহ নির্যাতনের শিকার হলেন এক মহিলা।

১৭ মে, বৃহস্পতিবার ভোপালে নিজ বাসা থেকে ওই নারীর নগ্ন মৃতদেহ উদ্বার করে পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের সময় চিকিৎসকরা নারীর গোপনাঙ্গ থেকে বিয়ার ও কোল্ড ড্রিঙ্কসের বোতলের টুকরো উদ্ধার করে।

স্থানিয় পুলিশ জানায়, অন্তত তিনদিন আগে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে। ওই নারী ভোপালের অশোকনগরে এক ব্যক্তির সঙ্গে একটি ঘরে থাকতেন।

ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে বলা হয়, খুন করার আগে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে। তার গোপনাঙ্গ থেকে বিয়ারের বোতল, কোল্ড ড্রিঙ্কসের ক্যান উদ্ধার করেন চিকিৎসকরা। এগুলো ঢোকানোর ফলে তার মারাত্মক রক্তক্ষরণ হয়। মনে করা হচ্ছে, এর জেরেই নারীর মৃত্যু হয়েছে। শুধু গোপনাঙ্গে নয়, নারীর মাথায়ও আঘাতের চিহ্ন পেয়েছেন তারা। তাদের ধারণা, খুব সম্ভবত নারীর মাথা দেওয়ালের সঙ্গে ঠুকে দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ওই নারীর মরদেহ উদ্ধাররে পর, যার সঙ্গে ওই নারী থাকতেন, সেই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। যখন ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়, তখন তিনিও নেশার ঘোরে ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ওই ব্যক্তি জানান, ওই নারী তার স্ত্রী ছিলেন। প্রথম দু’জন স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে গিয়েছেন। তৃতীয় স্ত্রী রহস্যজনকভাবে মারা যান। নিহত নারী ছিলেন ওই ব্যক্তির চতুর্থ স্ত্রী।

প্রতিবেশীরা জানান, ওই ব্যক্তি সন্দেহ করতেন, নারীর সঙ্গে অপর এক প্রতিবেশীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রয়েছে। আশ্চর্যজনকভাবে নারীর মৃত্যুর পর থেকে সেই প্রতিবেশীও নিখোঁজ। ইতোমধ্যে খুনের মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস, এবিপি আনন্দ

নেট থেকে সংগৃহিত ও অনুবাদকৃত সংবাদ সমূহ অফিসে সাব-এডিটরগণ সম্পাদনা করে প্রকাশ করে থাকেন। এ জাতীয় সংবাদ গুলো ডেস্ক নিউজ হিসেবে প্রকাশিত হয়।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত