এইমাত্র পাওয়া

কলারোয়ায় কঠোর নিরাপত্তার চাদরে নকলমুক্ত এইচএসসি পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক, (সাতক্ষীরা) কলারোয়া:
কঠোর নিরাপত্তার চাদরে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় নকলমুক্ত ও সুষ্ঠু পরিবেশ এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হয়েছে।২ এপ্রিল সোমবার পরীক্ষার প্রথমদিনে অনুপস্থিত ছিলো ৩২জন পরীক্ষার্থী।এইচএসসি, এইচএসসি (বিএম) ও আলিম পরীক্ষায় কলারোয়া সরকারি কলেজ, বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ, শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজ ও আলিয়া মাদরাসা কেন্দ্রে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নিয়মিত ও অনিয়মিত মিলে মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ৩০২৮ জন। এর মধ্যে প্রথম দিনে নিয়মিত পরীক্ষার্থী ছিলো ২৯৪৮জন। অংশ নেয় ২৯১৬ জন পরীক্ষার্থী।উপজেলার মোট ১১টি কলেজ থেকে অংশ নেয়া পরীক্ষার্থীর মধ্যে অনুপস্থিত ছিলো এইচএসসিতে ১৬জন ও এইচএসসি (বিএম)-এ ১৬ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে বিএম শাখায় সকাল সেশনে দ্বাদশ শ্রেণির ও বিকেল সেশনে একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।বিভিন্ন কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে- কলারোয়া সরকারি কলেজ কেন্দ্রে নিয়মিত ও অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর মোট সংখ্যা ৪৮৮জন। তাদের মধ্যে ৮০জন অনিয়মিত পরীক্ষার্থী। ফলে প্রথম দিনের নিয়মিত পরীক্ষার্থী ছিলো ৪০৮জন।বঙ্গবন্ধু মহিলা কলেজ কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ৮৩০জন। অনুপস্থিত ছিলো ১১জন।
শেখ আমানুল্লাহ ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে মোট এইচএসসি পরীক্ষার্থী ছিলো ২৯২জন। অনুপস্থিত ছিলো ৫জন। আর বিএম পরীক্ষায় সকাল সেশেনে (দ্বাদশ শ্রেণি) পরীক্ষার্থী ছিলো ৪৯৭জন। অনুপস্থিত ছিলো ৬জন। সেখানে বিকালে সেশেনে বিএম পরীক্ষায় (একাদশ শ্রেণি) মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ৪৭০জন।

তবে বিকেল সাড়ে ৪টার একটু আগে মোবাইল ফোনে সেখানকার কেন্দ্র সচিব আমানুল্লাহ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মনিরা বেগমের কাছে বিকেলের পরীক্ষায় অনুপস্থিতির তথ্য জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন- ‘আমি এখনো তথ্য পাইনি।’আলিয়া মাদরাসা কেন্দ্রে বিএম পরীক্ষার সকাল সেশনে (দ্বাদশ শ্রেণি) মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ২২৪জন। অনুপস্থিত ছিলো ১জন। বিকেল সেশনে বিএম পরীক্ষায় (একাদশ শ্রেণি) মোট পরীক্ষার্থী ছিলো ২২৭জন। অনুপস্থিত ছিলো ৯জন।এদিকে, পরীক্ষা শুরুর ত্রিশ (৩০) মিনিট পূর্বে পরীক্ষার্থীরা স্ব স্ব কেন্দ্রে প্রবেশ করে। নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা আর নকলমুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা কেন্দ্রের বিভিন্ন কক্ষ পরিদর্শন করে সার্বিক পরিবেশে সন্তোষ প্রকাশ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মনিরা পারভীন। আইন-শৃংখলা বাহিনী, কক্ষ পরিদর্শকসহ পরীক্ষার দায়িত্বে থাকা সকলে ছিলো অত্যন্ত সতর্কতায়।

কলারোয়া (সাতক্ষিরা ) প্রতিনিধি,
দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত