এইমাত্র পাওয়া

বিজয় দিবস উপলক্ষে কলারোয়ায় গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য লাঠি খেলা অনুষ্ঠিত

সরদার কালাম, কলারোয়া (সাতক্ষীরা) :
সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের খোরদো বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় খেলার মাঠে ঐতিহ্যবাহী বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া ঢালী /লাঠি খেলা হয়েছে । ২৬শে মার্চ উপলক্ষে দেয়াড়া ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে সোমবার সকাল থেকে সারাদিন ঐ খেলাটি হয়। এখনো গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলা দেখতে উপচে পড়ে মানুষের ভিড়। তারা গ্রামীণ ঐতিহ্যের মাধ্যমে উৎসবমুখর পরিবেশে নির্মল আনন্দ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা করে। তারই প্রমাণ পাওয়া গেল সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নে লাঠি /ঢালী খেলায়।২৬ মার্চ সোমবার ছিল মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন আয়োজনের বর্ণিল উৎসব ও শহীদদের স্বরনে নানান আয়োজন । এ উপলক্ষে দেশে ২৬শে মার্চ শুরু হওয়া বিভিন্ন কর্মসূচির অংশ হিসাবে। তারই লক্ষে দেয়াড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী মাহবুবর রহমান এর সভাপতিত্বে আনুষ্ঠানিকভাবে উৎসব পালিত হয় । নানা ধরণের কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে আনন্দে মাতে উপজেলার দেয়াড়াসহ পার্শ্ববর্তী উপজেলা বিভিন্ন এলাকার মানুষ ।প্রায় বিলুপ্তির পথে এই খেলাকে ঘিরে এলাকায় তৈরি হয় উৎসব মুখর পরিবেশ। মহুমহু করতালী ও জয়ের হর্সধ্বনি হাজারো দর্শক শ্রোতার আনন্দ উল্লাসে খোরদো বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠ মুখরিত হয়ে উঠে। নারী পুরুষ ও শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়সের লোক সম্মিলিত ভাবে এই লাঠির ঠকাস ঠকাস শব্দের খেলা উপভোগ করেন।চার দলীয় ঐ ঢালী /লাঠি খেলা শেষে বিজয়ী দলের দলনেতার হাতে উপহার তুলে দেওয়া হয়। সময়ের বিবর্তনে হারিয়ে গেলেও একটুও বদলায়নি এই খেলার জনপ্রিয়তা।

ঐতিহ্যবাহী খেলা হিসেবে একসময় গ্রামবাংলা এমনকি শহরের দর্শকদের মাতিয়ে রাখত ঢালী লাঠি খেলা। কিন্তু যান্ত্রিকতার এই যুগে সরঞ্জামহীন এই খেলাটি দিনে দিনে হারিয়ে যেতে বসেছে।

একটা সময় ছিল যখন গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহি জনপ্রিয় খেলা ছিলো ঢালী, লাঠি খেলা । দেশের যে সকল এলাকায় ঢালীপাড়া অর্থাৎ ঐ খেলায় পারদর্শী জাত খেলোয়াড় তাদের গ্রামের প্রত্যেক পাড়ায় কিশোর, যুবক মেতে উঠতো ঢালী লাঠি খেলায়। এবং তাদেরকে আমন্ত্রণ জানিয়ে একেক এলাকায় নিয়ে সকলেই উপভোগ করত খেলাটি। যেটা দীর্ঘ আনুমানিক ২০-২২ বৎসর পরে হয়েছে উপজেলার খোরদো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে বলে মনে করছেন আনন্দিত উপস্থিত জনতা । শুধু কিশোর-যুবকরাই ঢালী লাঠি খেলায় মেতে উঠতো তা নয়,বয়সে ভারি হওয়া বৃদ্ধরাও বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনা নিয়ে মেতে উঠতো এ খেলায়। আর ঐ খেলা উপভোগ করতে ভির জমাতো সকলে।এছারাও জনপ্রিয় ঐ খেলা দেখতে খেলার মাঠে হাজির হত মা-বাবা।যার প্রমাণ মিলেছে খোরদো মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের মাঠে।খেলাটি দেয়াড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজী মাহবুবুর রহমান মফের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কলারোয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সেলিনা আনোয়ার ময়না, খোরদো পুলিশ ক্যাম্পের আই সি সিরাজুল ইসলাম , খোরদো বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রবিউল ইসলাম, সাংবাদিক আবুল কাশেম,সাংবাদিক সরদার কালাম, ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম,ইউপি মহিলা মেম্বর আকলিমা খাতুন, সিনিয়র আ. লীগার আব্দুল কুদ্দুস চন্নু, উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী রুবেল ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ প্রমুখ ।এবং ঢালী লাঠি খেলার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক এম আইয়ুব হোসেন ।

কলারোয়া (সাতক্ষিরা ) প্রতিনিধি,
দীর্ঘদিন থেকে সাংবাদিকতা পেশার সাথে জড়িয়ে আছেন। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশই তাঁর লক্ষ্য এবং এ বিষয়ে তিনি অনেক সচেতন।

সর্বশেষ তালাশ

অপরাধ জগত